বিদ্যুৎ এর আঘাতের পর ও যারা বেঁচে রয়েছেন।


মেঘের সংঘর্সের ফলে বিদ্যুৎ উৎপন্ন হয়। সারা বিশ্বে প্রতি বছরে প্রায় ৪০ থেকে ৫০ টি বাজ পরার রেকর্ড রয়েছে । যেখানে ১২০০০ মানুষের মধ্যে প্রতি ১ জন বিদ্যুৎ দ্বারা আঘাতের স্বীকার হয়। এবং ৫০০ জনে
৯০% বেঁচে থাকে। এমন ১০ জন মানুষ সম্পর্কে বলব।

১০- উইনস্টন কেম্প


যখন উইনস্টন কেমপকে বাজ বল্টের দ্বারা আঘাত করা হয় তখন সে এমন ভাবে চলে গেল যেন তার কিছুই হয়নি। পরক্ষনেই তিনি আঘাত টা বুঝতে পারলেন। তার এই আঘাত টা একটা উল্কির মতো হয়ে গিয়েছে।

৯- পিটার ম্যাক্যাক্যাথি


২০১৫ সালের জুলাই মাসে তিনি বিদ্যুত দ্বারা আঘাত পান, সেই দিনেই তিনি এক মিলিয়ন ডলারের লটারিও জিতেছিলেন !১৪ বছর বয়সে তার উপর বাজ পরে কিন্তু বেঁচে যান তিনি। বেঁচে ফিরে তিনি তার সহকর্মির
কাছ থেকে টাকাটাও নিয়েছিলেন।

৮- ব্রিটনি ওয়েহের


১১ বছর বয়সি ব্রিটেনি ২০১১ সালে এক বন্ধুর সঙ্গে ওয়াশিংটন পেনসিলভানিয়া রাস্তায় হাঁটছিলেন ,এবং অনেক মজাই করছিলেন তিনি কিন্তু হঠাৎ একটি ঝড় শুরু হল এবং একটি বাজ তার ওপর পড়ল ।
তিনি বুঝতে পারেন নি যে তার কতটা আঘাত লেগেছে , তার হাত টা নাড়াতে পারতেন না বলে ডাক্তারের কাছে গিয়েছিলেন।পরবর্তিতে তার মারাত্মক আঘাত টি বুঝতে পারেন। ডাক্তার বলেন যে, তার কাঁধে
বাজ পড়ে এবং কাঁধ দিয়ে শরীরে ডুকে কব্জি দিয়ে বেরিয়েছে। যার ফলে হাত টি ভেঙেছে । ভাগ্যবশত তিনি বেঁচে যান। না হলে মারাত্মক কিছু ঘটতে পারতো ।

৭- মেলভিন রবার্টস


মেইলভিন রবার্টস ১১ বার বিদ্যুতের মাধ্যমে আঘাত পান। রবার্টস দক্ষিণ ক্যারোলিনা রাষ্ট্রের একটি অংশে বসবাস করেন যেখানে অন্য জায়গাগুলির চেয়ে বেশি বাজ পরে। আশ্চর্যজনকভাবে, তিনি
একটি রৌদ্রোজ্জ্বল দিনে আঘাত পেয়েছিলেন যখন তার বন্ধুর সাথে বুলডোজারে ড্রাইভিং করছিলেন। তাঁর স্ত্রী দাবি করেছেন যে তিনি অনেকবার আঘাত পেয়েছেন কিন্তু বিশ্ব রেকর্ডের জন্য গিনেস
বইয়ে নাম উঠাতে পারেননি প্রমান রাখা হইনি বলে।

৬- এলিস Svensson


২০১১ সালে,১২ বছর বয়সী অ্যালিস একটি ঝর্ণাতে গোসল করছিলেন। ঝর্ণাটি সুইডেন থেকে তার বাড়ি যাওয়ার পথে ছিল। সেই সময় ২ বার তার উপর বাজ পরে। ঝর্ণাটি বাড়ি থেকে বেশি দুরে না থাকাই তার
পরিবারের লোকেরা তার চিৎকার শুনতে পায়।ভেজা অবস্থায় থাকার ফলে তার শরীরে দ্রুত বিদ্যুৎ ছড়িয়ে পরে। কিন্তু সৌভাগ্যবশত তিনি প্রাণে বেঁচে যান ।

৫ – সোফি ফ্রস্ট এবং মেসন বিলিংটন


১৪ বছর বয়সী সোফি তার বন্ধু মেসনের সাথে হাঁটছিলেন তখন রাস্তায় বিদ্যুৎ ভোল্টের মাধ্যমে আঘাত পান। তাদের শরীরে আগুন লেগে গিয়েছিল । ভাগ্যক্রমে তাদের হাসপাতালে নেয়ার পর বেঁচে যায়।

৪.- অস্টিন মেল্টন


১৪ বছর বয়সী অস্টিন মেল্টন বিদ্যুৎ দিয়ে আঘাত পেয়েছিলেন যখন তিনি স্কুলের মাঠে বাস্কেট বল খেলছিলেন। তার মাথা,বুক ও কানের মধ্যে আঘাত পেয়েছিলেন। কিন্তু তারপর ও তিনি বেঁচে যান।

৩- ডিলান নিকোলাস
২১ বছর বয়সী ডিলান একটি গ্যারেজের দরজায় বসে ছিলেন যেখানে তিনি কাজ করতেন।দুপুরের খাবার খাওয়ার সময় বিদ্যুতের এক ঝলক তার উপর আঘাত হানে। পরে তিনি ব্যাথা বুঝতে পারার সাথে
সাথে অজ্ঞান হয়ে যান। তারপর তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এবং তিনি ও বেঁচে ফিরেন।

২- জেমে সান্টানা


২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে জেমে সান্টানা তার ভাই, শাশুড়ি ও বউ কে অ্যারিজোনাতে নিয়ে যাচ্ছিলেন ঘোড়ার গাড়ি দিয়ে। তখন রাস্তার মধ্যে ঝড় শুরু হয়। সেখান থেকে দ্রুত যাচ্ছিলেন কিন্তু তারপর ও
তিনি আঘাত পান এবং ঘোড়াটি মারা যায়। জেমি ৪ মাস হাসপাতালে ছিলেন এবং সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরেন।

১- রয় সুলিভান


তিনি ১৯৪২ সাল থেকে ১৯৭৭ সালের মধ্যে ৭ বার বিদ্যুৎ দ্বারা আক্রান্ত হন। তিনি গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে বসার একটি প্রচার মাধ্যম হয়ে ওঠেন । ৭ বার বিদ্যুতের আঘাতে ও তিনি বেঁচেছিলেন। অবশেষে ১৯৮৩ সালে মাথায় গুলি বিদ্ধ হন।


Like it? Share with your friends!

Your reaction?
happy happy
0
happy
angry angry
0
angry
wtf wtf
1
wtf
cute cute
0
cute

বিদ্যুৎ এর আঘাতের পর ও যারা বেঁচে রয়েছেন।

log in

reset password

Back to
log in